Thursday, June 25, 2020

গাঁধীকে নিয়ে লেখা একটি কবিতা


গাঁধী ও কবিতা

কে. সচিদানন্দন


গাঁধীকে এক ঝলক দেখবে বলে

একদিন একটা রোগা কবিতা

গাঁধীর আশ্রমে পৌঁছে গেল।

রামের দিকে তাকিয়ে গাঁধী

তখন চরকায় সুতো কাটছিলেন

তার দরজায় অপেক্ষা করতে থাকা

কবিতাটিকে তিনি নজরই করলেন না

কবিতাটা লজ্জা পেল সে কোনও ভজন ছিল না বলে

 

কবিতাটা একটা গলা খাঁকারি দিল

আর গাঁধী আড়চোখে তাকে দেখলেন

সেই চশমা দিয়ে যে চশমা

দেখেছে নরক।

“তুমি কি কখনও সুতো কেটেছ?”, তিনি জিজ্ঞেস করলেন,

“কখনও টেনেছ মেথরের গাড়ি?

কখনও সহ্য করেছ

খুব ভোরের রান্নাঘরের ধোঁয়াকে?

তুমি কি কখনও থেকেছ বুভুক্ষু?”

#

কবিতাটা বললঃ “আমি জন্মেছিলাম

জঙ্গলে, এক শিকারির মুখে।

এক জেলে আমাকে এই কুটির অব্দি নিয়ে এসেছে।

কিন্তু তবুও, আমি কোনও কাজ জানি না, আমি কেবল গান গাই।

প্রথমে আমি রাজসভায় গাইতাম

তখন আমি হৃষ্টপুষ্ট আর সুদর্শন ছিলাম,

কিন্তু আমি এখন পথে পথে ঘুরে বেড়াই,

অর্ধভুক্ত”

#

একটা সেয়ানার হাসি হেসে গাঁধী বললেন,

“তাও ভালো। কিন্তু তোমাকে

এই মাঝে মাঝে

সংস্কৃতে কথা বলার অভ্যেস

ছাড়তে হবে

মাঠে যাও, কৃষকের ভাষা

শোনো”

#

কবিতাটা একটা শস্যের দানা হয়ে গেল

আর মাঠে অপেক্ষা করতে লাগল

কখন চাষি এসে নতুন বর্ষণে সিক্ত

কুমারী মাটিকে উৎক্ষেপ করবে।

 


অনুবাদ: অংশুমান কর


ব্যবহৃত কবির ছবিটি কবির সৌজন্যে পাওয়া

 

 


15 comments:

  1. চমত্কার কবিতা । অনবদ্য অনুবাদ । অভিনন্দন ।

    ReplyDelete
  2. খুব ভালো লাগলো দাদা । আরও চাই

    ReplyDelete
  3. This comment has been removed by the author.

    ReplyDelete
  4. অনবদ্য অংশুমান দা, যেমন কবিতা তেমনি তার অনুবাদ

    ReplyDelete
  5. খুব ভালো লাগল । অসাধারণ একটি কবিতা । ধন্যবাদ অংশুমান ।

    ReplyDelete
  6. অপূর্ব কবিতা। আপনাকে ধন্যবাদ। এমন একটি কবিতা পড়ার সুযোগ দিলেন আমাদে।।

    ReplyDelete
  7. ভালো লাগল অনুবাদ।

    ReplyDelete
  8. চমৎকার কবিতা। প্রাঞ্জল অনুবাদ।

    ReplyDelete
  9. খুব ভালো লাগলো।

    ReplyDelete
  10. অনবদ্য স্যার.

    ReplyDelete
  11. কবিতাটি শুধু দুর্দান্তই নয়, অত্যন্ত জরুরিও। অনুবাদের জন্যই কেবল ধন্যবাদ জানাব না, অনুবাদের জন্য নির্দিষ্ট এই কবিতাটিই বেছে নেওয়ার জন্য কুর্ণিশও জানাতে চাই।

    ReplyDelete
  12. চমৎকার স্যার

    ReplyDelete
  13. চমৎকার স্যার

    ReplyDelete

রাজকল্যাণ চেল: বাংলা কবিতার আন্তর্জাতিক স্বর

বাংলা কবিতা থেকে এক রকম স্বেচ্ছা নির্বাসনই নিয়েছেন রাজকল্যাণ চেল। ক্বচিৎ কখনও একটি-দু’টি পত্রিকায় তাঁর লেখা হঠাৎ হঠাৎ দেখতে পাওয়া যায়। কিন্ত...